পাইলসের কারণ ও লক্ষন সমুহ

পাইলসের কারণ ও লক্ষন সমুহ

পাইলসের কারণঃ যে সকল কারণ পাই্লস তৈরীতে ভুমিকা রাখে বলে ধারনা করা হয় সেগুলি হলঃ
১)  অনিয়মিত মলত্যাগের অভ্যাস (কৌষ্টকাঠিন্য বা ডায়রিয়া)
২)  খাদ্যাভ্যাস (কম আশযুক্ত খাবার)
৩) পেটের আভ্যন্তরীন চাপ বেড়ে যাওয়া ( পেটে পানি আসা, প্রেগনেন্সী বা কোন টিউমার)
৪)  বংশগত
৫)  বার্ধক্যজনিত
৬)  স্থুলকায়তা
৭)  দীর্ঘক্ষণ একটানা বসে থাকা
৮)  প্রলম্বিত কাশি
 লক্ষণসমূহঃ প্রকারভেদে রোগী ভিন্ন ধরনের উপসর্গ নিয়ে আসতে পারে, যদিও কোন কোন রোগীর একই সঙ্গে দুই ধরনের পাইলস থাকতে পারে। রক্তপাত মূল উপসর্গ হলে তা কদাচিৎ জীবন সংশয়কারী রক্তন্বল্পতা করে। রোগী মূলত একধরনের অস্বস্তি অনুভব করে।  সঠিক সময়ে চিকিৎসা না করা হলে রোগ যন্ত্রনা অনেকক্ষেত্রেই বেড়ে যায়। পাইলসের অবস্থানভেদে

বাহ্যিক পাইলসের লক্ষণঃ  

  • মলদ্বারের পার্শ্বে সামান্য স্ফীতি বা ফোলে যাওয়া,
  • আশপাশের চামড়ায় এবং মলদ্বারে চুলকানী হয়
  • ভিতরে রক্ত জমাট বেধে  তীব্র ব্যথা হয়ে থাকে

 অভ্যন্তরীন পাইলসের লক্ষণঃ

  • পায়ুপথে উজ্জ্বল লাল বর্ণের ব্যথাহীন রক্তপাতই এই ধরনের পাইল্স এর মূল লক্ষণ
  • মলত্যাগের সময় বা পরপরই কখনও একসাথে কখনও ফিনকি দিয়ে এই রক্তপাত হওয়া
  • পায়ুপথে চুলকানী,মলদ্বার পিচ্ছিল ও ভিজে থাকা,
  • স্থানচ্যুত পাইলসসমূহ মলদ্বারের বাহিরে চলে আসা ( যা কখনো নিজেই ভিতরে চলে যায় বা আঙ্গুল দিয়ে ভিতরে ঠেলে দিতে হয়)
  •  স্থানচ্যুত পাইলসসমূহের স্থায়ীভাবে পায়ুপথের বাইরেই অবস্থান করা
  • স্থানচ্যুত পাইলসসমূহের ভিতরে রক্ত জমাট বেধে গিয়ে বা ইনফেকশন হয়ে বা পচন ধরে ব্যথা করা

 

সমজাতীয় আর্টিকেলঃ পাইলস বা অর্শ্ব বা হেমোরয়েড (Hemorrhoid) কি?