জরায়ু মুখের ঘা Cervicitis

জরায়ু মুখের ঘা Cervicitis

জরায়ু মুখের ঘা  বা সারভিসাইটিসঃ

যৌন সক্রিয় নারীর জীবনের একটি অতিপরিচিত স্বাস্থ্য সমস্যা হল জরায়ু মুখ বা সার্ভিক্সের সংক্রমন যা জরায়ু মুখের ঘা  বা সারভিসাইটিস(Cervicitis) নামে পরিচিত । জরায়ু মুখের প্রদাহের ফলে জরায়ুর মুখ লাল হয়ে গিয়ে জরায়ুর মুখের ঘা দেখা দেয় ।

জরায়ু মুখের ঘা  বা সারভিসাইটিসের কারনঃ

  • প্রসব বা গর্ভপাতের পর বিভিন্ন রোগজীবানুর সংক্রমন
  • নানাবিধ বাহ্যিক আঘাত (অস্ত্রোপচার,প্রসবের সময় গর্ভের শিশুর অস্বাভাবিক অবস্থান)
  • যৌনবাহিত রোগ (গনোরিয়া, সিফিলিস )
  • অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে এম.আর ও ডিএন্ডসি করানো
  • অদক্ষ দাই-এর মধ্যমে প্রসব কার্য সম্পাদন
  • জরায়ু মুখ ছিঁড়ে গিয়ে সংক্রমিত হওয়া

জরায়ু মুখের ঘা  বা সারভিসাইটিসের লক্ষন কি ?

জরায়ু মুখের ঘা  বা সারভিসাইটিসের লক্ষনঃ

  • জরায়ু, যোনি, কোমর বা তলপেট ব্যথা
  • মাসিক ঋতুস্রাবের সময় জ্বালা ও ব্যথা হওয়া
  • দুই মাসিকের মাঝখানে হঠাৎ মাসিকের রাস্তায় রক্তপাত হওয়া
  • মাসিকের রাস্তায় দুর্গন্ধযুক্ত সাদা বা বাদামী স্রাব বের হওয়া
  • জরায়ুর নিচের অংশ ও যোনিতে চুলকানি
  • জরায়ুর মুখ ছোট বা বড় হয়ে যাওয়া

জরায়ু মুখের ঘা  বা সারভিসাইটিসের অত্যাধুনিক চিকিৎসা কি?

জটিল সংক্রমনে সাধারনত এন্টিবায়োটিক প্রয়োগ করা হয়ে থাকে । বার বার এন্টিবায়োটিক দিয়েও যখন সংক্রমন থামানো যায় না তখন জরায়ু কেটে ফেলে দিয়ে রোগ যন্ত্রনা লাঘবের চেষ্টা  করা হয় । কিন্ত জরায়ু কেটে ফেলে দিলে পরবর্তিতে দেখা দেয় নানাবিধ জটিল সমস্যা । বর্তমানে কাটা-ছেঁড়াহীন লেজার সার্জারী Laser Vaporization  এর মাধ্যমে জরায়ু কেটে না ফেলে জরায়ু মুখের ঘা ( সার্ভিক্সের সংক্রমন ) বা সারভিসাইটিসের নিরাপদ নিরাময় সম্ভব হচ্ছে ।